ব্যাটসম্যান হিসাবেই তাঁর অভিষেক হয়েছিল। ছিলেন পার্ট টাইম স্পিনার। ৯০টি টি-২০ খেলে ৩১ উইকেট পেয়েছিলেন। এবার সেই পার্ট টাইম স্পিনার টি-২০ ক্রিকেটে বিশ্বরেকর্ড গড়ে ফেললেন। টি-২০ ক্রিকেটে একজন বোলার সর্বোচ্চ চার ওভার বোলিং করতে পারেন। কলিন অ্যাকারম্যান চার ওভারে সাতটি উইকেট পেলেন। বিশ্বরেকর্ড গড়লেন। টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে এখন এই পার্ট টাইম প্রোটিয়া স্পিনার সেরা বোলিং রেকর্ড-এর মালিক।

চার ওভারে ১৮ রান দিয়ে সাত উইকেট। ইংল্যান্ডের ঘরোয়া টি-২০ কাপে লেস্টারশায়ারের হয়ে বার্মিংহাম বিয়ারসের বিরুদ্ধে এমন রেকর্ড গড়লেন তিনি। টি-২০ ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত ৩০ জনের বেশি বোলার এক ইনিংসে ছয় উইকেট পেয়েছেন। তবে সাত উইকেট শিকার করতে পারেননি কেউ। পার্ট টাইম অফ-স্পিনার হিসাবে দক্ষিণ আফ্রিকার অ্যাকারম্যান একমাত্র যিনি সাত উইকেট পেলেন।

হ্যাটট্রিক হয়নি। তবে পর পর দুই ওভারে তিনি তিনটি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন। এর আগে টি-২০ ক্রিকেটে সেরা বোলিং রেকর্ড ছিল আরুল সুপিয়াহর। ২০১১ সালে ইংল্যান্ডের ফ্রেন্ডস লাইফ টি-টোয়েন্টিতে সমারসেটের হয়ে গ্লামরগনের বিরুদ্ধে ৫ রানে ৬ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি। এবার টি-২০ ক্রিকেটে সেরা বোলিং রেকর্ড গড়লেন অ্যাকারম্যান। প্রসঙ্গত, লেস্টারশায়ারের কাছে বার্মিহাম বিয়ারস ম্যাচটা ৫৫ রানে হেরেছে।

দেখুন ভিডিওতে ক্রিকেট ধারাভাষ্যকারদের আয় কত জেনে নিন: