বিসিবির কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গতকাল ঢাকায় এসেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক জাতীয় দলের কোচ ও বর্তমান ‘এ’ দলের কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। বর্তমানে টাইগারদের হেডকোচের পদ খালি রয়েছে তাই সবার ধারণা ছিল টাইগারদের হেড কোচের পদে সাক্ষাৎকার দিতেই ঢাকায় এসেছেন ডমিঙ্গো।

তবে পরে জানা গেল অন্যকথা। টাইগারদের নয় বাংলাদেশ ‘এ’ দল বা এইচ পি দলের কোচ হিসেবে সাক্ষাৎকার দিতে এসেছিলেন ডমিঙ্গো। ধানমণ্ডিতে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসানের কর্মস্থল বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস কার্যালয়ে কাল বিকেলে সংবাদমাধ্যমের উপচে পড়া ভিড়। জাতীয় দলের সম্ভাব্য হেড কোচ হিসেবে তাঁর সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়েছে বলা হলেও আসলে ওই পদে এই দক্ষিণ আফ্রিকান আবেদনই করেননি। বরং তিনি নিজের এজেন্টের মাধ্যমে বাংলাদেশ ‘এ’ দল অথবা হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) দলের কোচ হতেই আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন!

ডমিঙ্গোর চাহিদা অনুযায়ী বোর্ড সন্তুষ্ট হওয়ারই কথা। তিনি বরং বাংলাদেশ ‘এ’ অথবা এইচপি দলের কোচ হওয়ার জন্য অত্যন্ত ‘সস্তার প্যাকেজ’ও প্রস্তাব করেছিলেন বলে নিশ্চিত করেছে সূত্রটি। সত্যিই তাই। যেখানে এইচপির বর্তমান হেড কোচ অস্ট্রেলিয়ার সাইমন হেলমটই তিন মাসের চুক্তিতে নেন ৭৫ হাজার ইউএস ডলার, সেখানে ডমিঙ্গোর এজেন্টের প্রস্তাব ছিল আট হাজার ইউএস ডলারের কিছু বেশি! দক্ষিণ আফ্রিকায় তাঁর মাসিক বেতন যে ওই আট হাজারই। চন্দিকা হাতুরাসিংহে এবং স্টিভ রোডসের পেছনে যথাক্রমে মাসে প্রায় ২৮ হাজার এবং ২০ হাজার ডলার গুনে আসা বিসিবির জন্য অবশ্য এটি একেবারেই সস্তার সমাধান!

দেখুন ভিডিওতে ক্রিকেট ধারাভাষ্যকারদের আয় কত জেনে নিন: