লেখাপড়া ফেলে TikTok-এ ছেলেমেয়েকে সারাক্ষণ ভিডিয়ো করতে দেখে এই অ্যাপকে ‘ক্ষতিকর’ বলেই মনে করছেন অনেকে। কিন্তু এ বার TikTok-এর জন্য উপকৃত হলেন এক মহিলা। তিন বছর পর খুঁজে পেলেন পালিয়ে যাওয়া স্বামীকে।

অদ্ভুত এই ঘটনাটি ঘটেছে তামিলনাড়ুর ভিল্লুপুরম জেলায়। জানা গিয়েছে, ভিল্লুপুরমের বাসিন্দা দুই সন্তানের মা জয়াপ্রদার স্বামী সুরেশ ২০১৬ সালে পারিবারিক অশান্তির জেরে বাড়ি ছেড়ে চলে যান। দীর্ঘদিন স্বামী বাড়ি না ফেরায়, ভিল্লুপুরম থানায় এফআইআর করেছিলেন জয়াপ্রদা। কিন্তু খোঁজ মেলেনি স্বামীর। থানায় অভিযোগ জানানো ছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় সুরেশের খোঁজে ছোটাছুটি করেন জয়াপ্রদা। কিন্তু তাতেও কোনও ফল মেলেনি।

সম্প্রতি জয়াপ্রদার এক আত্মীয় তাঁকে একটি TikTok ভিডিয়ো দেখান। ১৫ সেকেন্ডের ওই ভিডিয়োয় জয়াপ্রদা তাঁর স্বামী সুরেশকে নাচানাচি করতে দেখেন। একটুও দেরি না করে ওই ভিডিয়োটি নিয়ে ভিল্লুপুরম থানায় ছুটে যান জয়াপ্রদা। স্বামীকে খুঁজে দেওয়ার জন্য পুলিসের কাছে অনুরোধ জানান তিনি।

এর পর ওই TikTok ভিডিয়োর সূত্র ধরে সুরেশের খোঁজ খবর শুরু করে পুলিস। জানা যায়, তামিলনাড়ুর হসুর শহরে থাকেন সুরেশ। পুলিস হসুরে পৌঁছে সুরেশের সঙ্গে যোগাযোগ করে। পুলিসের বোঝানোর পর অবশেষে বাড়ি ফিরতে রাজি হয় সুরেশ। অর্থাত্, একটি TikTok ভিডিয়ো দীর্ঘ তিন বছর পর জয়াপ্রদাকে খুঁজে দিল তাঁর হারানো স্বামীকে। আর পুলিশের চেষ্টায় দু’টি শিশু ফিরে পেল তাঁদের বাবাকে।