এবারের আইপিএলে মানকাড আউটের বিষয়টা বেশ আলোচিত হয়ে উঠেছে। যার কেন্দ্রে ভারতের অভিজ্ঞ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। রাজস্থান রয়্যালসের ব্যাটসম্যান জস বাটলারকে মানকাড আউট করে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে যান কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক। অবৈধ আউট নয়, তবে ক্রিকেটীয় স্পিরিটের বিরোধী, এ কারণেই মূলতঃ বিতর্কটা দানা বেধে উঠেছিল।

সেই রবিচন্দ্রন অশ্বিন আবারও চেষ্টা করলেন মানকাড আউট করার। শুধু তাই নয়, এই আউট করার চেষ্টা পরবর্তী ঘটনাপ্রবাহ পুরোপুরি হাস্যরসের খোরাহ জুগিয়েছে আইপিএল তথা ভারতীয় ক্রিকেটে।

শনিবার রাতে দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় অশ্বিন চেষ্টা করেন দেশীয় সতীর্থ শিখর ধাওয়ানকে মানকাড আউট করার। যদিও শেষ মুহূর্তে দেখেন যে ধাওয়ানের ব্যাট ক্রিজের মধ্যেই রয়েছে। সে কারণে দ্রুত নিজেকে সামলে নেন অশ্বিন।

দিল্লি ক্যাপিটালস ইনিংসের ১৩তম ওভারে বল করছিলেন অশ্বিন। এ সময় নন-স্ট্রাইকিং এন্ডে ছিলেন শিখর। একটি বল করতে এসে ধাওয়ানকে মানকাড আউটের চেষ্টা করেন পাঞ্জাব অধিনায়ক। ওভারের তৃতীয় বলটি করতে গিয়ে হঠাৎই মুহূর্তের জন্য থমকে গিয়ে ক্রিজে শিখরের ব্যাটের অবস্থান মেপে নেন অশ্বিন। যেটা দেখেই বোঝা গেছে তিনি মানকাড আউটের চিন্তা করেছিলেন।

এ যাত্রায় ধাওয়ান সতর্ক থাকায় আউট হননি। তার ব্যাট ক্রিজের মধ্যে রয়েছে দেখে উইকেটে বল ছোঁড়েননি অশ্বিন। এরপরই জাতীয় দলের সতীর্থকে পাল্টা দেন শিখর ধাওয়ান।

পরের বলটি করার জন্য অশ্বিন রান আপ নিতে পিছনে ছুটে গেলে হাঁটু মুড়ে ক্রিজে বসে মজা শুরু করে দেন তিনি। পরে অশ্বিন বল করতে ক্রিজে এসে যখন বলটি ছুঁড়ছিলেন, তখন একধরনের ঠাট্টারচ্ছলেই নাচের ভঙ্গিতে ক্রিজ ছেড়ে বেড়িয়ে যাওয়ার অভিনয় করেন ধাওয়ান। এ দিয়ে পাঞ্জাব অধিনায়ককে বোকা বানানোর চেষ্টা করেন গব্বর সিং।

পুরো ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে দুই ভারতীয় ক্রিকেটারের মজার এপিসোড নেটিজেনদের বেশ মনে ধরেছে। রীতিমত ভাইরাল হয়ে গেছে ধাওয়ান-অশ্বিনের এই মানকাড আউট আউট খেলার দৃশ্যটি।

সম্প্রতি ইডেনে নাইটদের সেরা স্পিনার নারিন কোহলিকে মাড়কীয় আউটের চেষ্টা করলে সতর্ক ছিলেন বিরাট৷ নারিনের আউটের চেষ্টার ভাবনার পাল্টা দিয়ে ক্রিজে ব্যাট রেখে মজা জুড়ে দিয়েছিলেন কোহলি৷