প্রথম দিনেই সেঞ্চুরি পেয়ে গিয়েছিলেন মুমিনুল হক, দ্বিতীয় দিনে হাতছানি দিচ্ছিল ডাবল সেঞ্চুরি। সেটা অবশ্য হয়নি, তবে নাজমুল হোসেন শান্ত পেয়েছেন সেঞ্চুরি। দ্বিতীয় দিন শেষে কর্ণাটকে কে থিম্মাপ্পিয়া মেমোরিয়াল টুর্নামেন্টে শক্ত অবস্থানে চলে গেছে বিসিবি একাদশ, ৭ উইকেটে ৫০০ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেছে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১ উইকেট হারিয়ে ১১৪ রান তুলেছে বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভবিষ্যৎ তারকারা উঠে আসে এই টুর্নামেন্ট থেকে। এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলো থেকে সেরা খেলোয়াড়েরাই মূল রঞ্জি ট্রফিতে খেলার সুযোগ পায় বলে এই টুর্নামেন্টের নাম দেওয়া হয়েছে ‘মিনি রঞ্জি’। প্রথমবারের মতো এই টুর্নামেন্টে খেলার জন্য একমাত্র বিদেশি দল হিসেবে আমন্ত্রণ পেয়েছে বিসিবি একাদশ।

এই টুর্নামেন্টে খেললে খেলোয়াড়দের মধ্যে টেস্ট খেলার মানসিকতা গড়ে উঠবে, এই আশায় বেশ শক্তিশালী দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। দলে আছেন তাসকিন আহমেদ, মুমিনুল হক, আবু জায়েদ, নুরুল হাসানের মতো তারকারা। সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম, আরিফুল হক, জহুরুল ইসলামের মতো পরিচিত মুখও খেলবেন বিসিবি একাদশের হয়ে।

১৬টি দল চারটি জোনে বিভক্ত হয়ে খেলবে এই টুর্নামেন্ট। প্রতি জোন থেকে শীর্ষ দল উঠবে সেমিফাইনালে। বিসিবি একাদশ স্থান পেয়েছে ‘বি’ জোনে। বিসিবি একাদশের সঙ্গে এই জোনে বিদর্ভ অ্যাসোসিয়েশন, কর্ণাটক রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন একাদশ ও ডক্টর ডি. ওয়াই. পাতিল ক্রিকেট অ্যাকাডেমি।