এবারের আসরটি হবে ক্রিকেটের ১২তম বিশ্বকাপ আসর। এ বছরের ৩০ মে থেকে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে যৌথভাবে অনুষ্ঠিত হবে ক্রিকেটের এই মেগা ইভেন্ট। ৫০ ওভারের এই আসরের ফাইনাল হবে ১৪ জুলাই। মোট ১০টি দল খেলছে এবারের বিশ্বকাপে। ২০১৯ এর আগে ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপ আয়োজক দেশ ছিলো ইংল্যান্ড। এবারের বিশ্বকাপে সর্বমোট ৪৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ১১টি ভেন্যুতে।

১ এজবাস্টন ক্রিকেট গ্রাউন্ড বার্মিংহাম ২৫ হাজার
২ কাউন্টি ক্রিকেট গ্রাউন্ড ব্রিস্টল ১৭ হাজার
৩ রিভার্সাইড গ্রাউন্ড চেস্টার লী স্ট্রিট ২০ হাজার
৪ হেডিংলি লীডস ১৭ হাজার পাঁচশ
৫ লর্ডস লন্ডন ২৮ হাজার
৬ ওভাল লন্ডন ২৩ হাজার পাঁচশ
৭ ওল্ড ট্রাফোর্ড ম্যানচেস্টার ২২ হাজার
৮ ট্রেন্ট ব্রিজ নটিংহ্যাম ১৭ হাজার
৯ রোজ বোল সাউদাম্পটন ২৫ হাজার
১০ কাউন্টি গ্রাউন্ড টনটন ৮ হাজার পাঁচশ
১১ কাডিফ ওয়েলস কার্ডিফ ১৫ হাজার ৬৪৩

ট্রেন্ট ব্রিজ: ঐতিহাসিক ট্রেন্টব্রিজ ক্রিকেট স্টেডিয়ামটির যাত্রা শুরু হয় ১৮৪১ সালে। ১৯৭৪ সালে এই মাঠে প্রথম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ খেলা হয়। এরপর ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে এই স্টেডিয়ামটিতে বেশ কয়েকটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। ১৯১৯ বিশ্বকাপে এ মাঠে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানসহ মোট পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

রিভার্সাইড ডারহাম: রিভারসাইড ডারহাম স্টেডিয়ামটির যাত্রা শুরু হয় ১৯৯৫ সালে। ডারহাম কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হোম গ্রাউন্ড এটি। পূর্বে এই মাঠটিতে বিশ্বকাপের মোট ৫টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সবগুলো ম্যাচ ছিলো ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপের। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে এই স্টেডিয়ামটিতে মোট ৩টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

ওভাল: স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার আসরের উদ্বোধনী ম্যাচসহ ২০১৯ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মাঠে। কাউন্টি ক্লাব সারের নিজস্ব এ মাঠ থেকে ঐতিহাসিক টেমস নদীর দূরত্ব ঢিল ছোড়া। ইংল্যান্ডের মাটিতে এটাই ছিল প্রথম টেস্ট ভেন্যু। ১৮৮০ সালে যে ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া। সেই থেকে এ পর্যন্ত এ মাঠে একশ টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ মাঠে এর আগে ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ বিশ্বকাপে মোট দশটি ম্যাচে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ওল্ড ট্রাফোর্ড: ওল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৫৭ সালে। এটি ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় প্রাচীনতম স্টেডিয়াম। ল্যাংকাশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হোম গ্রাউন্ড এটি। স্টেডিয়ামটি ম্যানচেস্টারের ট্রাফোর্ড এলাকায় অবস্থিত। এ ভেন্যুতে ২০১৯ বিশ্বকাপে একটি সেমিফাইনালসহ মোট ছয়টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

লর্ডস: ক্রিকেটের মক্কা খ্যাত এ মাঠে আসন্ন বিশ্বকাপে ১৪ জুলাই ফাইনালের আগে গ্রুপ পর্বে চারটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১৮১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হলেও ১৮৮৪ সালে এ মাঠে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ আসরের ফাইনালসহ লর্ডসে আইসিসি বিশ্বকাপের মোট ১০টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বকাপ ইতিহাসে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ লর্ডসের এ মাঠেই। বিশ্বকাপের প্রথম আসর ১৯৭৫ সালে ভারতের বিপক্ষে ৪ উইকেটে ৩৩৪ রান করেছিল ইংল্যান্ড।

হেডিংলি: হেডিংলি স্টেডিয়ামটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৯০ সালে। ইয়র্কশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হোম গ্রাউন্ড এটি। স্টেডিয়ামটি ইংল্যান্ডের লীডস শহরে অবস্থিত। লীডস সিটি স্টেশন থেকে বাস ট্রেন এবং ট্যাক্সিতে করে যাওয়া যাবে স্টেডিয়ামটিতে। ১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপের পর ২০১৯ বিশ্বকাপের ৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে এই স্টেডিয়ামে।

হ্যাম্পশায়ার বোল: ২০১৯ আসরেই প্রথমবারের মত হ্যাম্পশায়ারে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এ মাঠে গ্রুপ পর্বের মোট পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। তবে হ্যাম্পশায়াওে এর আগে ১৯৮৩ এবং ১৯৯৯ সালেও বিশ্বকাপের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তবে সে সময় সে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হয়েছিল সাউদাম্পটনের নর্দল্যান্ডস রোড গ্রাউন্ডে।

এজবাস্টন: কাউন্টি দল ওয়ার উইকশায়ারের নিজস্ব এ মাঠে একটি সেমিফাইনাল এবং ইংল্যান্ড-ভারতসহ বিশ্বকাপের পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১৮৮২ সালে প্রতিষ্ঠিত এ মাঠে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে কোন খেলোয়াড়ের সর্বোচ্চ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যান ব্রায়ান লারার অপরাজিত ৫০১ রানসহ বেশ কিছু ঐতিহাসিক মুহূর্ত রয়েছে।

কাউন্টি গ্রাউন্ড টনটন: ২০১৯ বিশ্বকাপের ৫টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে এই স্টেডিয়ামে। নিজস্ব ইতিহাস ও চরিত্রের জন্য বিশেষভাবে পরিচিত কাউন্টি গ্রাউন্ড টনটন। ১৮৮২ সাল থেকেই এ মাঠ ব্যবহৃত হচ্ছে। ১৯৮৩ বিশ্বকাপে একটি এবং ১৯৯৯ আসওে দুইটি ম্যাচে এখানে অনুষ্ঠিত হয়।

কার্ডিফ ওয়েলস স্টেডিয়াম: কার্ডিফ ওয়েলস স্টেডিয়ামটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৮৫৪ সালে। গ্লামরগান কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হোম গ্রাউন্ড এটি। স্টেডিয়ামটি ওয়েলসের কার্ডিফে অবস্থিত। সব রকম যানবাহনে চড়েই পৌঁছানো যাবে এই স্টেডিয়ামে। গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। ২০১৯ বিশ্বকাপের ৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে এই স্টেডিয়ামে।

ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ড: কাউন্টি ক্লাব গ্লস্টারশায়ারের নিজস্ব এ মাঠে ২০১৯ বিশ্বকাপে তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১৯৮৩ ও ১৯৯৯ সালের পর দ্বিতীয়বার এখানে পুরুষ বিশ্বকাপ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।