আজ পাকিস্তান নামছে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। হারলে বিশ্বকাপের আশা কার্যত এ বারের মতো শেষ হয়ে যাবে পাকিস্তানের। মরিয়া এই ম্যাচের আগে পাকিস্তান অধিনায়কের গলাতেও আবেগ। শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি ক্রমাগত আক্রমণের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন। পাক অধিনায়ক বলেছেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কেউ যা খুশি বলতেই পারেন। সেটা যদি ক্রিকেট নিয়ে বা আমাদের খারাপ পারফরম্যান্স নিয়ে হয়, তা হলে আপত্তি নেই। কিন্তু সেটা হচ্ছে না। পরিবারকে জড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। ম্যাচের আগে টিমের মনোসংযোগ করতে পারছে না। অত্যন্ত খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি।’

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সময়টাও একেবারে ভালো যাচ্ছে না। অপ্রত্যাশিতভাবে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দেওয়া ছাড়া আর কিছুই করতে পারেনি তারা। ৫ ম্যাচ থেকে মাত্র ১ জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে কেবল আফগানিস্তানের উপরে আছে তারা।

ওয়ানডে ক্রিকেটে মুখোমুখি দেখায় দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়ে বেশ পিছিয়ে আছে পাকিস্তান। ৭৮ ম্যাচ তাদের জয় মাত্র ২৭টি। অন্যদিকে, দক্ষিণ আফ্রিকার জয় ৫০ ম্যাচে। বাকি ১ ম্যাচ থাকে ফলহীন। বিশ্বকাপেও পাকিস্তানের উপর আধিপত্য দক্ষিণ আফ্রিকার। ৪ দেখায় ৩ জয় প্রোটিয়াদের। বাকি ১ ম্যাচ জেতে পাকিস্তান।

পয়েন্ট টেবিলের নিচের দিকের এই দুই দল আজ একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে লর্ডসে। এই ম্যাচ দিয়েই ক্রিকেটের তীর্থভূমিতে ফিরছে বিশ্বকাপ। যে ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ।

বিশ্বকাপ এর পয়েন্ট টেবিল ঃ